রাশিয়া বিশ্বকাপের স্বেচ্ছাসেবকদের ইউনিফর্ম

সময় এগিয়ে আসছে। আর ৪৫ দিন পর রাশিয়ায় শুরু হচ্ছে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’-বিশ্বকাপ ফুটবল। চলছে শেষ সময়ের প্রস্তুতি। ১১ শহরের ১২ ভেন্যু এখন পুরোপুরি প্রস্তুত বিশ্বকাপের খেলা বুকে ধারণ করতে। শহরগুলো সাজছে বর্ণিলভাবে। আয়োজক রাশিয়া ফুটবল ফেডারেশন ও ফিফা সাজিয়ে নিচ্ছে সব কিছু। কারা ম্যাচ অফিসিয়াল থাকবেন, কে কোন ম্যাচে বাঁশি বাজাবেন, পতাকা হাতে দাঁড়াবেন কারা- সবই ঠিকঠাক। এই তো সোমবার ঘোষণা করেছে বিশ্বকাপের জন্য বাছাই করা ১৩ জন ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির (ভিএআর) নামও।

বিশ্বকাপে বরাবরই আয়োজকরা বিশাল সহযোগিতা পেয়ে থাকে স্বেচ্ছাসেবকদের কাছ থেকে। এ জন্য বিশ্বের নানা দেশ থেকে স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ দিয়ে থাকে আয়োজকরা। রাশিয়া বিশ্বকাপে ভেন্যু, টিম হোটেল, প্র্যাকটিস ভেন্যু থেকে শুরু করে প্রয়োজনীয় সব স্থানে নিয়োজিত রাখার জন্য প্রায় ২০ হাজার স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

তো কেমন হবে বিশ্বকাপে দায়িত্ব পালনকারী স্বেচ্ছাসেবকদের ইউনিফর্ম? সোমবার ইকাটেরিনবার্গের ফুটবল পার্কে স্বেচ্ছাসেবকদের ইউনিফর্ম উন্মোচন করা হয়েছে। স্থানীয় অনেক স্বেচ্ছাসেবক তাদের ইউনিফর্ম পরিধান করে টুইট করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্টও করেছেন।

রাশিয়া বিশ্বকাপের আয়োজক কমিটি তাদের টুইটার পেজে স্বেচ্ছাসেবকদের ইউনিফর্ম পোস্ট করেছে। এবারের ইউনিফর্ম থাকছে লালের আধিক্য। লাল রঙের জ্যাকেটের সামনের বাম দিকে আছে রাশিয়া বিশ্বকাপের লোগো এবং ডান দিকে বড় করে সোনালী হরফে লেখা (volunteer)। জ্যাকেটের পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবকদের থাকবে নীল রঙের প্যান্ট, লাল রঙ্গের টুপি ও ব্যাকপ্যাক। প্রত্যেকটির সঙ্গেই থাকছে বিশ্বকাপের লোগো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*