কৌতুক তোর ভাবি কুয়ায় পড়ে গেছিল

কৌতুক- এক : তোর ভাবি কুয়ায় পড়ে গেছিল

১ম বন্ধু : কি রে, কেমন আছিস?

১ম বন্ধু : কেন?

২য় বন্ধু : কাল তোর ভাবি কুয়ায় পড়ে গেছিল।

১ম বন্ধু : হায় হায়! খুব ব্যথা পেয়েছে?

২য় বন্ধু : হুম, মনে হয়, কাল খুব কান্নাকাটি করছিল। সারা রাত জোরে জোরে চিত্কার করছিল আর কাঁদছিল।

১ম বন্ধু : আজ কেমন আছেন?

২য় বন্ধু : ভালোই আছে হয়তো। আজ সকালের পর কুয়া থেকে আর কোনো কান্নার আওয়াজ পাইনি তো

 

কৌতুক- দুই : আমি মাস্টারের বাপ!

বাস কন্ডাক্টর : এই যে ভাই, ভাড়াটা দিন?
যাত্রী : এই নেন!
বাস কন্ডাক্টর : ৫ টাকা কেন? ১০ টাকা দেন।
যাত্রী : আমি ছাত্র! জানিস না আমার ভাড়া হাফ?

পাশের জনকে-
বাস কন্ডাক্টর : আপনার ভাড়া দেন!
যাত্রী : এই ব্যাটা, আমি ছাত্রের মাস্টার, আমার ভাড়া মাফ।

আরেকজন চেচিয়ে বলছে-
অন্যজন : আমাকে কিছু টাকা দে, আমি মাস্টারের বাপ!

 

কৌতুক- তিন : পেসাব পরীক্ষা করতে এসেছি

মফিজ গেছে চিকিৎসকের কাছে। তো লাইনে দাঁড়িয়ে আছে। কিছুক্ষণ পর এক লোক চেম্বার থেকে কাঁদতে কাঁদতে বেরিয়ে এলো-

মফিজ : আপনি কাঁদছেন কেন?

লোক : ডাক্তার অনেক হারামি। সে বলল রক্ত টেস্ট করবে। কিন্তু হাতের আঙুল কেটে ফেলল।

মফিজ কথা শুনে দিলো এক দৌড়। পেছন থেকে ওই লোক বলল-

লোক : আপনি দৌড়াচ্ছেন কেন?

মফিজ : আমি তো পেসাব পরীক্ষা করতে এসেছি। ডাক্তার যদি…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*