নিয়াজুলের অস্ত্র’ উদ্ধার

নিয়াজুলের অস্ত্র’ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী ও তাঁর সমর্থকদের ওপর হামলার ঘটনায় নিয়াজুল ইসলামের অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে নিয়াজুল গ্রেপ্তার হননি।

গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে নগরীর চাষাঢ়া সাধু পৌলের গির্জার সামনের ফুলের টবে পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় নিয়াজুলের পিস্তলটি উদ্ধার করে পুলিশ। জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শরফুদ্দিন জানান, পিস্তলের ম্যাগাজিনে ১০টি গুলি ছিল।

গত ১৬ জানুয়ারি নগরীর চাষাঢ়ায় ফুটপাতে হকার বসাকে কেন্দ্র করে মেয়র আইভী ও তাঁর সমর্থকদের ওপর হামলা হয়। এতে সাংসদ শামীম ওসমানের সমর্থকেরা জড়িত ছিলেন বলে অভিযোগ ওঠে। মেয়র ও তাঁর সমর্থকদের জমায়েতে অস্ত্র উঁচিয়ে গুলি করে আলোচনায় আসেন নিয়াজুল ইসলাম খান। পরে তাঁকে গণপিটুনি দেওয়া হয়। হামলায় মেয়র আইভী ও সাংবাদিকসহ অর্ধশতাধিক আহত হন। ঘটনার পর থেকে নিয়াজুল পলাতক।

সেলিনা হায়াৎ আইভীর ওপর ইটপাটকেল ছোড়ার একপর্যায়ে নিয়াজুল ইসলাম খানের হাতে অস্ত্র দেখা যাচ্ছে। চাষাঢ়া, নারায়ণগঞ্জ, ১৬ জানুয়ারি। ছবি: প্রথম আলোসেলিনা হায়াৎ আইভীর ওপর ইটপাটকেল ছোড়ার একপর্যায়ে নিয়াজুল ইসলাম খানের হাতে অস্ত্র দেখা যাচ্ছে। চাষাঢ়া, নারায়ণগঞ্জ, ১৬ জানুয়ারি। ছবি: প্রথম আলোওই দিনের ঘটনার পাঁচ দিন পর মেয়র আইভীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে অস্ত্রধারী নিয়াজুলসহ নয়জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও এক হাজার ব্যক্তিকে আসামি করে অভিযোগ দাখিল করা হয়। সিটি করপোরেশনের আইন কর্মকর্তা জি এম এ সাত্তার বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় অভিযোগ দাখিল করেন। তবে পুলিশ এটি এখনো মামলা হিসেবে নেয়নি। সদর থানার পরিদর্শক জয়নাল আবেদীন বাদী হয়ে পুলিশের ওপর হামলা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে অজ্ঞাত ৫০০ লোকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*