খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্যাটকোসহ তিন মামলার শুনানি পিছিয়েছে

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্যাটকোসহ তিন মামলার শুনানি পিছিয়েছে

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি ফের পিছিয়েছে।

তিন আসামির করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত তিন নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচরক আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন রোববার অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য আগামী ৪ মার্চ নতুন দিন ধার্য করেন।

প্রয়াতমন্ত্রী কর্নেল আকবর হোসেনের ছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন, তানভীর আহমেদ এবং গালিব হোসেনের পক্ষে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ থাকায় অভিযোগ গঠনের শুনানি হয়নি।

ব্যক্তিগত হাজিরা মওকুফ হওয়ায় খালেদা জিয়ার পক্ষে হাজিরা দেন তার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর তেজগাঁও থানায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া, তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলা দায়ের করেন দুদকের উপ পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যাটকোকে ঢাকার কমলাপুর আইসিডি ও চট্টগ্রাম বন্দরের কন্টেইনার হ্যান্ডলিংয়ের কাজ পাইয়ে দিয়ে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকার ক্ষতি করেছেন।

এই মামলার পরদিনই খালেদা গ্রেফতার হয়েছিল। পরের বছর ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় দুদক। পরে মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেছিলেন হাইকোর্ট।

৪২ জনকে পুড়িয়ে হত্যা মামলা পিছিয়েছে: অপর একটি মামলায় খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল পিছিয়ে আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি পরবর্তী দিন ধার্য করা হয়েছে।

সারা দেশে হরতাল-অবরোধে ৪২ জনকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগে হত্যা ও রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে দায়ের করা মামলাটি রোববার প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু এদিন গুলশান থানা পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল করতে না পারায় ঢাকা মহানগর হাকিম খুরশীদ আলম এ দিন ধার্য করেন।

মামলার অপর তিন আসামি হলেন- বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. এমাজউদ্দিন আহম্মেদ ও সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী।

২০১৫ সালের ২ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকী মামলাটি দায়ের করেন। ওইদিন আদালত গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতাকে (ওসি) অভিযোগ তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

প্রতিবেদন দাখিল পেছাল: মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে ১৫ আগষ্ট ভুয়া জন্মদিন পালন করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা তামিল সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন পিছিয়ে আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি ধার্য করেছেন আদালত।

রোববার এ মামলায় খালেদা জিয়াকে গ্রেফতারি পরোয়ানা সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু গুলশান থানা পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল করতে না পারায় ঢাকা মহানগর হাকিম খুরশীদ আলম নতুন এ দিন ধার্য করেন।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক যুগ্ন সম্পাদক গাজী জহিরুল ইসলামের দায়ের করা মামলায় ২০১৬ সালের ১৭ নভেম্বর আদালত খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*