স্মৃতিশক্তি ধরে রাখার উপায়

স্মৃতিশক্তি ধরে রাখার উপায়

আমরা কে , আমাদের কাজ কি তা মনে রাখতে সাহায্য করে আমাদের মস্তিষ্ক। কিন্তু বয়সের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের স্মৃতিশক্তি লোপ পেতে থাকে।

গবেষকরা মানুষের মস্তিষ্ক নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই গবেষণা করছেন। বয়স বাড়লেও কীভাবে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বজায় রাখা যায় তা নিয়ে তারা অনেক ধরনের পরামর্শও দিয়েছেন। তারা বলছেন,যত বেশি পরিমানে মস্তিষ্কের চর্চা করা যাবে এবং শরীরের যত্ন নেওয়া হবে ততই মস্তিষ্কের উর্বরতা বাড়বে।

যত বেশি নতুন নতুন কিছু শিখবেন ততই মস্তিষ্কের চর্চা বাড়বে। যেমন- নতুন কোন বাদ্যযন্ত্র শেখা, সুডুকু বা দাবার মতো বুদ্ধি বাড়ানোর কোন গেম খেলা, নতুন ধরনের কোন নাচ, ছবি আঁকা ,সৃষ্টিশীল কোন কাজ শেখা , নতুন ভাষা রপ্ত করা ইত্যাদি স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে।

নিজেকে কাজের মধ্যে ব্যস্ত রাখতে হবে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, নিজেকে যত বেশি কাজে ব্যস্ত রাখবেন ততই মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়বে।

আপনি যত বেশি গোছানো হবেন আপনার স্মৃতিশক্তি ততই ভাল থাকবে। সারাদিনে আপনি কি কি কাজ করবেন তা একটি খাতায় লিখে রাখতে পারেন। তাহলে ভুলে যাওয়ার সম্ভাবনা কমে যাবে।

প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমাতে যান। আর সকালে একই সময়ে ওঠার চেষ্টা করুন। ছুটির দিনেও একই রুটির মেনে চলার চেষ্টা করুন। তাহলে আপনার ঘুমের একটা ভারসাম্য বজায় থাকবে। এতে মস্তিষ্কও সুস্থ থাকবে।

ঘুমানোর আগে সেল ফোন, টেলিভিশন এবং কম্পিউটার স্ক্রিনে কোন কিছু দেখা থেকে বিরত থাকুন। পর্যাপ্ত ঘুম এবং বিশ্রাম না হলে মস্তিষ্কের ওপর তার প্রভাব পড়ে।

মস্তিষ্কের উর্বরতা বাড়াতে কিছু খাবার খাওয়া জরুরি। এর মধ্যে সবুজ শাকসবজি, জাম, শস্যদানা, বাদাম, মুরগীর মাংস, অলিভ ওয়েল অথবা নারকেল তেল, সামুদ্রিক মাছ ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

স্মৃতিশক্তি ধরে রাখতে কিছু কিছ খাবার যেমন চিনি, প্রসেসড খাবার, মাখন, লাল মাংস, ভাজাপোড়া খাবার,লবণ, পনির এসব এড়িয়ে চলাই ভাল।

স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর জন্য নিয়মিত শরীর চর্চা করাটা জরুরি। এটা শরীরে অক্সিজেনের সরবরাহ বাড়ায় ,শরীর ভাল থাকতে সাহায্য করে, মস্তিষ্কে নতুন সেল তৈরি করে।

যত বেশি মানসিক চাপ কমানো যাবে মস্তিষ্কে তত বেশি কার্যক্ষম থাকেবে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, মানুষ যত বেশি সামাজিক হয়, তার মস্তিষ্ক তত ভাল থাকে। একজন মানুষের সঙ্গে ১০ মিনিট কথা বললে তা মস্তিষ্কের উর্বরতা বাড়াতে সাহায্য করে।

মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়াতে প্রচুর পানি পান করা প্রয়োজন। এছাড়া নিয়মিত মেডিটেশন করলেও স্মৃতিশক্তি বাড়ে। সূত্র : হেলথলাইন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*